Featured

Wraith: The Unknown Facts

The Devourer of the Fear

Who lives on our Fear
"আমি ভয় পাই না"-উক্তিটি প্রায়সই লোকমুখে শোনা যায়। এমন বহু মানুষ আছেন,যারা এই উক্তিটিকে সাফল্য মন্ডিত করেছেন যথার্থ ভাবে। কিন্তু ব্যাপারটা কি বলুন তো, আমরা কোনো না কোনো রকম ভাবে,সেই প্রাগৈতিহাসিক কাল থেকেই ভয় পেতে খুব ভালোবাসি। সে প্রথম আগুন দেখেই হোক বা আকাশের নক্ষত্র পতন দেখে, কিংবা সেটা অজানাকে জেনে হোক বা কোনো কিছু অদেখা কে দেখে!সেই আদি কাল থেকেই আমাদের মানস চক্ষের আড়ালে,এমন অনেক মহাজাগতিক-ব্যাখ্যাহীন বিষয় বা বস্তু আছে যারা খুব সন্তর্পণে নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছে আমাদের মাঝে, যাকে ধর্মে দৈবিক বলে, আর বিজ্ঞানে illogic! আর আমাদের এই বিস্তীর্ণ চরাচরেই এমন অসংখ্য লোককথা আছে,যেখানে এই সব লৌকিক বা অলৌকিকের গন্ডি পেরিয়ে বাসা বেঁধেছে এমন কিছু আদিম বিস্ময়।স্কটিশ লোককথা অনুসারে এমনই এক আদিম ও অজানা শক্তির উল্লেখ পাওয়া যায়; যাকে "Wraith"(রিথ) বলে পরিচয় দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে বহু ফিকশনাল গল্প,ফিল্ম,ওয়েব সিরিজে এর উল্লেখ থাকলেও উৎসের দিক থেকে বলতে গেলে- এই Wraith আমাদের ইহলোকের প্রাণী বা জীব নয়। এরা আমাদের মানস চক্ষের আড়ালে থাকা সূক্ষাতিসূক্ষ  মাত্রার(Dimension) মাঝে বাস করে। যখন কোনো জীবিত প্রাণী প্রায় মৃত্যুর প্রাঙ্গনে বা সদ্য মৃত হয়েছে, তখনই এই "রিথ" এর আভির্ভাব হয় আমাদের সবার চোখের আড়ালে! কেন জিজ্ঞাস করছেন?উত্তর হলো নিজের ক্ষুধা মেটাতে। হ্যাঁ, ঠিকই পড়ছেন। এরা নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে শুষে নেয় সেই সব মৃত বা মৃতপ্রায় প্রাণীদের উর্জা। আর যখন এরা এই ভাবে নিজের ক্ষুধা নিবারণ করে উঠতে পারেনা তখনই এরা আসে আমার কাছে! রাতের অন্ধকারে হোক বা দিনের আলোয় যখনই আপনি ভয় পাবেন তখনই এরা এসে আপনার ভয় কে শুষে; নিজের ক্ষুধা নিবারণ করবে! তাইতো রাত্রে ঘুমের মধ্যে কোনো দুঃস্বপ্ন দেখে আপনি যখন ভয় পান,আপনার মনে হয় না  যে, আপনি ঘুম থেকে জেগে উঠেছেন কিন্তু তবুও সেই দুঃস্বপ্ন দেখে চলেছেন বা কোনো কারণবশত চোখ খুলতে পারছেন না আর নিজের শরীরকেও নড়াতে পারছেন না! হয়তো কোনো এক দৈবিক বলে বলুন বা illogic কারণে; আপনার অবচেতন মনও জানে যে যদি এই সময় আপনি চোখ খোলেন তাহলে এমন এক ভয়ঙ্কর মহাজাগতিক জিনিস দেখবেন যেটা দেখার জন্য আমরা কখনই প্রস্তুত নই।

* এই সম্পূর্ণ ব্লগটি folklore এর উপর ভিত্তি করে লেখা। ছবিটি আমার কল্পনায় রচিত, আসল বা প্রচলিত Wraith এর ছবি গুগল খুড়োর কাছে পেয়ে যাবেন। 

✒️- আমি;সাহেব 
Proofreading- দীপান্বিতা সানা।


"I'm not afraid" - the saying is often heard in public. Many people have made this statement a success. But the thing is, we love to be scared in one way or another since prehistoric times. Whether he/she sees fire for the first time or he/she sees the stars falling in the sky, or he/she knows the unknown or he/she sees something which is not meant to see!!! From the earliest times; behind the eyes of our humanity, there are many cosmic-unexplained things or objects which have very carefully maintained their existence among us - which is called divine in religion, and illogic in science! And we also have countless folk tales all over this vast expanse, where some primitive wonders have crossed the boundaries of all these miracles or wonders. According to Scottish folklore, such a primitive and unknown force is mentioned; Which has been identified as "Wraith". Although it is currently mentioned in many fictional stories, films, and web series; in terms of its origin, this Wraith is not an animal or a creature of our world! They live in the subtle dimensions behind our psychic eyes. When a living creature is almost on the verge of death or just died, then this "Wraith" appears behind the eyes of all of us! Why are you asking? The answer is to fulfil their hunger. Yes; that's right. They absorb the energy of those dead or dying living beings to devour them throughout their existence. And when they can't satisfy their hunger in this way, then they come to us! Whether it is in the darkness of night or in broad daylight, whenever you are afraid, they come in silence and Devour your fears! So when you are having a nightmare in your sleep and you are scared, although you are almost woken or trying to; it's still hard for you to open your eyes or move your body. And somehow in this condition, you are still having that nightmare! Maybe this is happening for one of those divine or illogical reasons! Your subconscious mind also knows that if you open your eyes at this time, you will see a terrifying cosmic thing that we are never ready to see!?
* This entire blog is based on folklore. This image is my imaginative creation, the original or conventional image of Wraith can be found on Google.
✒️- Saheb
Advertisements

https://instagram.com/sahebthebaka?utm_medium=copy_link

Rating: 5 out of 5.
Advertisements

DIGITAL MAGAZINE

শারদীয়ার শুভেচ্ছা

কলী কথা E-Magazine:6th Issue

Advertisements
সু-শ্যামাঙ্গ বঙ্গ এবে মহাব্রতে রত।
এসেছেন ফিরে উমা, বৎসরের পরে,
মহিষমৰ্দ্দিনীরূপে ভকতের ঘরে;
বামে কমকায়া রমা, দক্ষিণে আয়ত-
লোচনা বচনেশ্বরী, স্বর্ণবীণা করে;
শিখীপৃষ্ঠে শিখীধ্বজ, যাঁর শরে হত
তারক—অসুরশ্রেষ্ঠ; গণ-দল যত,
তার পতি গণদেব, রাঙা কলেবরে
করি-শিরঃ; —আদিব্রহ্ম বেদের বচনে ।
এক পদ্মে শতদল৷ শত রূপবতী—
নক্ষত্রমণ্ডলী যেন একত্রে গগনে!—
কি আনন্দ! পূৰ্ব্ব কথা কেন কয়ে, স্মৃতি,
আনিছ হে বারি-ধারা আজি এ নয়নে?—
ফলিবে কি মনে পুনঃ সে পূর্ব্ব ভকতি?

কবিতা: আশ্বিন মাস
কবি: মাইকেল মধুসূদন দত্ত

-----------------------

আপামর বঙ্গবাসী এখন প্রতীক্ষায় রয়েছেন 'মা'-কে বরণ করবার জন্য। মনের ভিতর চাপা উচ্ছ্বাস নিয়ে এখন শুধু দিন গোনার পালা। 'কলি কথা' প্রকাশনাও তার ব্যতিক্রম নয়। শরতের আকাশ মানেই উৎসবের আমেজ, আর উৎসব মানেই উপহার। সারা বছর ধরে অগণিত পাঠককূলের কাছ থেকে যে অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি তাতে আমরা ধন্য। এবারে আমাদের পালা আপনাদের জন্য নতুন উপহার নিয়ে আসার। তাই দুর্গা পূজার প্রাক্কালে 'কলি কথা' প্রকাশনী নিয়ে আসছে তাদের শারদীয়া পত্রিকা কলি কথা ভলিউম-২(পেপারব্যাক) "শারদীয় সংখ্যা", শুধুমাত্র আপনাদের জন্য। 
আমাদের প্রত্যাশা আপনাদের মনে মাঝে আরও বেশী করে পৌঁছাবার। 
আপনাদের সকলের পুজো খুব ভাল কাটুক, এই কামনা করি।
ইন্দিরা দাশ
Advertisements
আপনাদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের পাশে থাকার জন্য। আগামী আনন্দের দিন গুলির জন্য আপনাদের সকলকে অগ্রিম শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

*শারদীয় সংখ্যা খুব শীঘ্রই আসছে......



*** ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proofreading এ - দীপান্বিতা সানা, স্বাগতামন।

প্রচ্ছদ, অলংকরণ Design এ- সঞ্জীব বেরা ও তিয়াসা ভদ্র ও সাহেব সরদার।

Web site, প্রকাশনী ও "কলি কথা" সম্পর্কিত সকল কিছুর সম্পাদনা,পরিচালনা ও প্রতিনিধিত্বে- সাহেব সরদার।
 
©Copyright Disclaimer:- All the Contents used in this E-magazine is either created by us(KOLI KATHA/কলি কথা) or it's provided by its creator, We didn't grant those contents source authenticity. Please check all the information about the creator to learn more about their content.  Don't use any of this content without our or the creator's authorization. If you want to use our content or any other's Creator content, please contact us. We will be happy to help you.
Advertisements
Click on the download button for downloading our 6th E-magazine

Thanks for your support and love

সাহেব
Advertisements

DIGITAL MAGAZINE

“নদী তুমি বহ কার দিকে”

Koli Katha E-magazine:5th Issue 
ভাদ্র

কলি কথা (Koli Katha)

It's not about us, it's about all of us

Advertisements
"পহিল্ ভাদরে পড়িয়াছে মনে কোন্ দেশ অভিনব?
তোমার কপোল-পরশ না পেয়ে পান্ডুর কেয়া-রেণু,
তোমারে স্মরিয়া ভাদরের ভরা নদীতটে কাঁদে বেনু।
কুমারীর ভীরু বেদনা-বিধুর প্রণয়-অশ্রু সম
ঝরিছে শিশির-সিক্ত শেফালি নিশি-ভোরে অনুপম।
​ওগো ও কাজল-মেয়ে,​​ 
উদাস আকাশ ছলছল চোখে তব মুখে আছে চেয়ে।
কাশফুল সম শুভ্র ধবল রাশ রাশ শ্বেত মেঘে
তোমার তরীর উড়িতেছে পাল উদাস বাতাস লেগে।"

'বর্ষা-বিদায়'- কাজী নজরুল ইসলাম---চক্রবাক

বিদ্রোহী কবির এই লেখাটুকু  আমাদের ভাদ্র মাসের ৫ম  E-magazine এ উল্লেখ না করলে, একটা বড় শূন্যতার সৃষ্টি হচ্ছিল। তাই আর কি.......
ভাদ্র মাসের সম্বন্ধে বলতে গেলে বলতে হয়;
"আরে একি! 
হুট করে নামল যে বৃষ্টি!
এক পশলা বৃষ্টি শেষে আবার রোদের খেলা।"
হ্যাঁ, ঠিক এই রকমই প্রকৃতির খেলা দেখা যায় ভাদ্রের সকালে, যেটা হয় মেঘ-বৃষ্টি মাখা। আবার দুপুরে কড়া রোদের ঝলক। আবার কখনও সন্ধ্যায় মেঘের আনাগোনা। তাইতো কারো কারো ভাবনাটা এমন হতেই পারে যে বর্ষাকাল এখনো শেষ হয়নি।
কিন্তু ভাদ্র মাসে 'তাল পাকা গরম' পড়লেও প্রকৃতি এ সময় থাকে স্নিগ্ধতার বৈচিত্র্যে ভরা, নরম ও কোমল। মাঝে মধ্যে বৃষ্টি ঝরলেও; আকাশ সেজে উঠতে থাকে নীল নির্মল রূপে, যেখানে পেঁজা তুলার মতো ভেসে বেড়ায় মেঘেদের দল। ভাদ্র শেষে আশ্বিন আসতে আসতে প্রকৃতি ছেয়ে যায় এক স্বর্গীয় শুভ্রতায়। ভাদ্রে সূচনা, আশ্বিনে পরিপূর্ণতা!
দুই মাসের আয়ু নিয়ে এসে প্রকৃতিতে শরৎ প্রকাশ করে তার বহুমাত্রিক অবয়ব।

যাই হোক, অনেকটা সময় নিয়েই আপনাদের সময় নষ্ট করলাম। তাই বেশী দেরী না করে আপনাদের সৃজনশীল সৃষ্টি নিয়ে শুরু করা যাক আমাদের এই মাসের "কলি কথা"।

কলমে- সাহেব সরদার
*** ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proofreading এ - দীপান্বিতা সানা।
প্রচ্ছদ, অলংকরণ Design এ- সঞ্জীব বেরা ও তিয়াসা ভদ্র ও সাহেব সরদার।
 Web site, প্রকাশনী ও "কলি কথা" সম্পর্কিত সকল কিছুর সম্পাদনা,পরিচালনা ও প্রতিনিধিত্বে- সাহেব সরদার।

  ©Copyright Disclaimer:- All the Contents used in this E-magazine is either created by us(KOLI KATHA/কলি কথা) or it's provided by its creator, We didn't grant those contents source authenticity. Please check all the information about the creator to learn more about their content.  Don't use any of this content without our or the creator's authorization. If you want to use our content or any other's Creator content, please contact us. We will be happy to help you.

Advertisements
Click on the download button for downloading our 5th E-magazine
Advertisements

THANKS FOR YOUR TIME

SAHEB

Digital Magazine

কলি কথা- E-magazine: 4th issue

শ্রাবণ

কলি কথা (Koli Katha)

It's not about us, it's about all of us

"ওগো,আজ তোরা যাস নে গো,তোরা যাসনে ঘরের বাহিরে। 
আকাশ আঁধার, বেলা বেশি আর নাহি রে।
ঝরঝর ধারে ভিজিবে নিচোল,
ঘাটে যেতে পথ হয়েছে পিছল,
ওই বেণুবন দুলে ঘনঘন পথপাশে দেখ্ চাহি রে।
ওগো, আজ তোরা যাস নে ঘরের বাহিরে।।"

কবি – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

Advertisements

আষাঢ়ের ওই বাদল দিনগুলিতে কবি বাইরে যেতে নিষেধ করতেন। আজ হয়তো বাদলের ঘন বরষা নেই, হয়তো বা নেই আউশে ভরা ক্ষেত। কালো মেঘও আকাশে নেই, তবু মনের গভীর কোনে জমে আছে জমাট বাঁধা অনুভূতি। এই মেঘে আঁধার ঘনিয়ে না আসলেও আঁধার ঘনিয়েছে আমাদের সমাজে। ভারী বর্ষণ না হলেও ভারী হচ্ছে সাধারণ মানুষের ঋণের মিছিল।

এই আষাঢ়ে হয়তো ধেনুর ডাক শোনা যায় না, তবে শোনা যায় সমাজের খেটে খাওয়া নিম্নবিত্তদের আওয়াজ। করোনার মহামারি আর সমাজের অরাজকতা আজ অসহায়ত্বের রূপ নিয়েছে ক্ষুধার মহামারির কাছে। অফিস-আদালত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহনসহ বিভিন্ন নির্মাণাধীন কাজ সীমিত হয়ে যাওয়ায় কাজ পাচ্ছেন না শ্রমিকেরা। বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী শিল্প প্রতিষ্ঠানে দূর্নীতির থাবায় প্রাণ ওষ্ঠাগত সাধারণ মানুষের। এতে স্ত্রী-স্বামী ও সন্তানের খাবার সংগ্রহ করতে হিমশিম খাচ্ছে নিম্নবিত্ত মানুষ, বিপাকে পড়েছেন মধ্যবিত্ত পরিবারেরা।

তবু মানুষ এগিয়ে চলেছে অদম্য সাহস বুকে নিয়ে। পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে আছে অনৈতিকতা, অরাজকতা, দুর্নীতি, মহামারী আর কতো কি! কিন্তু মানুষ তবু আশার পাণিযুগল ছাড়েনি। আজও এই বিপরীত পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ ছাড়েনি স্বপ্ন দেখার অভ্যাসকে। সে স্বপ্ন দেখে চলেছে পরিশ্রান্ত মনে, অলীক সুখের প্রশান্তি পেতে।

তাইতো যখন প্রকৃতি তার উগ্র তেজে এই চরাকে ভাসিয়েছে, শুরু করেছে ধ্বংসের খেলা, তখন এই সময়ের চাকায় পিষে যাওয়া সাধারণ মানুষ হাঁসি মুখে বলছে-

“আমার ধ্বংস ভালো লাগে, ধ্বংস হতে ভালো লাগে, তাইতো ছুটে আসি তোমার কাছে, বারবার-বারংবার, কেননা আমার ধ্বংস ভালো লাগে! ধ্বংস হতে ভালো লাগে!”

✒️সাহেব
Advertisements

লাইনগুলি আর অন্য কোথায় বলা যায় বলুনতো! আপনাদের মতামত জানাবেন আমাদের ফেসবুক গ্রুপ/পেজ বা Instagram অ্যাকাউন্টে। 

তাহলে অনেকতো হলো “কলিরকথা” আমার কলমে, এবার না হয় আপনাদের কলমের রূপকথা গুলো পড়া যাক। তবে আমার কথা শেষ করার আগে আপনাদের জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। অসংখ্য ধন্যবাদ আমার পাশে থাকার জন্য। অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের পাশে থাকার জন্য। অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের পাশে থেকে “কলি কথা” কে “কলি কথা প্রকাশনী” -র রূপ দেওয়ার জন্য। অসংখ্য ধন্যবাদ “কলি কথা প্রকাশনী”-র প্রথম পেপারব্যাক ম্যাগাজিনকে বাস্তবায়িত করার জন্য।অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাদের। এই ভাবেই সর্বদা আমাদের পাশে থাকুন, এর থেকে বড় প্রাপ্তি আর কিছুই হতে পারে না আমাদের।

তাহলে শুরু করা যাক আমাদের এই মাসের- “কলি কথা” 

কলমে- সাহেব সরদার

Advertisements

*** ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proofreading এ – দীপান্বিতা সানা।

প্রচ্ছদ, অলংকরণ Design এ- সঞ্জীব বেরা, উজ্জ্বল প্রামাণিক ও তিয়াসা ভদ্র।

 Web site, প্রকাশনী ও “কলি কথা” সম্পর্কিত সকল প্রকারের সম্পাদনা,পরিচালনা ও প্রতিনিধিত্বে- সাহেব সরদার।

আমাদের E-magazine এর 4th issue তে যে সব স্রষ্টারা অংশগ্রহন করেছেন তারা হলেন-
  • পূজা চক্রবর্ত্তী(মুমু)
  • ইন্দিরা দাশ
  • সুদীপ দাস
  • সুব্রত মজুমদার
  • সঞ্জীব বেরা
  • সুদীপ্ত সানা
  • রিংকি হালদার
  • লিপি বর্মন
  • সৌরদীপা ঘোষ
  • শতরূপা শাসমল
  • অনিমেষ ঘোষ
  • অন্বেষা দত্ত মজুমদার
  • শুভ্রদীপ ঘোষ
  • অঙ্কন গুহ
  • খেয়া ঘোষ

আপনাদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ। সকলে ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন আর নতুন সৃজনশীল সৃষ্টি গড়তে থাকুন।

  ©Copyright Disclaimer:- All the Contents used in this E-magazine is either created by us(KOLI KATHA/কলি কথা) or it’s provided by its creator, We didn’t grant those contents source authenticity. Please check all the information about the creator to learn more about their content. Don’t use any of this content without our or the creator’s authorization. If you want to use our content or any other’s Creator content, please contact us. We will be happy to help you.

Click on the download button for downloading our 4th E-magazine

Digital Magazine

“Freedom is most addictive”

কলি কথা (Koli Katha)

It's not about us, it's about all of us

কলি কথা- E-magazine : 3rd issue

জ্যৈষ্ঠ
জ্যৈষ্ঠ হল বাংলা সনের দ্বিতীয় মাস এবং গ্রীষ্মের শেষ মাস।জ্যেষ্ঠা নক্ষত্রের নামানুসারে এই মাসের নামকরণ করা হয়েছে।
না,এবারে একটু ভিন্ন হোক!

“I cannot tell you how it was,

But this I know: it came to pass

Upon a bright and sunny day

When May was young; ah, pleasant May!

As yet the poppies were not born

Between the blades of tender corn;

The last egg had not hatched as yet,

Nor any bird foregone its mate.

I cannot tell you what it was,

But this I know: it did but pass.

It passed away with sunny May,

Like all sweet things it passed away,

And left me old, and cold, and gray.”

By Christina Rossetti

গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডারের পঞ্চম মাস “May” বছরের পঞ্চম মাস, 31 দিনে সমন্বিত।

বুঝেছি, কিন্তু এই নাম কোথা থেকে এল?
মে (ল্যাটিনে, Maius) গ্রীক দেবী মাইয়া-এর জন্য নামকরণ করা হয়েছিল, যাকে রোমান যুগের উর্বরতার দেবী বোনা দে বলে চিহ্নিত করা হয়েছিল, যার উৎসব মে মাসে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। বিপরীতভাবে, রোমান কবি ওভিড একটি দ্বিতীয় ব্যুৎপত্তি প্রদান করেছেন, যেখানে তিনি বলেছেন যে মে মাসের নামকরণ করা হয়েছে মায়োরদের জন্য, ল্যাটিন ভাষায় “বয়স্কদের” জন্য এবং পরের মাসের (জুন) নামকরণ করা হয়েছে iuniores বা “যুবকদের জন্য” (ফাস্তি VI.88)।

আমরা আবার এসেছি “Mayday- Mayday” করতে করতে আপনাদের কাছে, আমাদের E-magazine এর ৩য় issue নিয়ে। প্রতি বারের ন্যায় এবারেও আমরা এনেছি আপনাদেরই সৃষ্টি কয়েকটি অসাধারণ ফটোগ্রাফ, কবিতা, গল্প এবং আরো অনেক কিছু!
তাই আপনাদের বেশি ব্যাতিব্যস্ত করে আর সময় নষ্ট করবো না! সরাসরি চলে যাওয়া যাক না “কলি-কথা” র মধ্যে।
তবে সব কিছু শুরু করার আগে আপনাদের একটি বিশেষ বিষয়ে অবগত করাতে চাই!
আমি, আমাদের সকল কলি কথার সদস্যের হয়ে খুবই আনন্দের সাথে আপনাদের জানাতে চাই যে- খুব শীঘ্রই আমরা আমাদের E-magazine কে Paperback রূপে প্রকাশিত করতে চলেছি!
আরো বিশদে জানতে চোখ রাখবেন আমাদের অফিসিয়াল youtube channel, Instagram account আর Facebook পেজ ও গ্রুপে।
তাহলে শুরু করা যাক………

Advertisements

আমাদের “কলি কথা” E-magazine এর 3rd issue তে যারা যারা যুক্ত হয়েছেন তারা হলেন-

  • সৌরদিপা ঘোষ
  • তিলক মুখার্জি
  • রাজু চক্রবর্তী
  • ইন্দিরা দাশ
  • তনুশ্রী দত্ত
  • সুব্রত মজুমদার
  • সুদীপ দাস
  • পূজা চক্রবর্ত্তী
  • প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য
  • সৌহিত দাস
  • বিপাশা চৌধূরী

আপনারা পুনরায় এই অল্প সময়ের মধ্যেই, আমাদের অনেক লেখা,কবিতা ও আপনাদের আরও অনেক সৃষ্টি পাঠিয়েছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত; পর্যাপ্ত সময় না পেয়ে আমিও পুনরায় সে গুলিকে E-magazine এ যোগ করতে পারিনি। এই ত্রুটির জন্য আমি একান্ত দুঃখীত। তবে সাহিত্যের এবং আমাদের প্রতি ভালোবাসা নিয়ে, আপনারা আমাদের পাশে থাকুন।

Thanks for your support.
Click on the download button for downloading our 3rd E-magazine

সম্পূর্ণ সম্পাদনা,ওয়েবসাইট রক্ষণাবেক্ষণ,ডিজাইনিং,ই-ম্যাগাজিন মেকিং,ডিজাইনিং এবং পরিচালনায় আমি – সাহেব সরদার।

ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proof reading এ – দীপান্বিতা সানা।

Advertisements
Visit our YouTube channel
Advertisements

One-Time
Monthly
Yearly

Make a one-time donation

Make a monthly donation

Make a yearly donation

Choose an amount

5 ₹
15 ₹
100 ₹
5 ₹
15 ₹
100 ₹
5 ₹
15 ₹
100 ₹

Or enter a custom amount


Your contribution is appreciated.

Your contribution is appreciated.

Your contribution is appreciated.

DonateDonate monthlyDonate yearly
Advertisements

Digital Magazine

“Not being perfect is also part of life”

it's not about us, it's about all of us

কলি কথা E-magazine : 2nd issue

“বৈশাখ”

“হৃদয় আমার, ওই বুঝি তোর বৈশাখী ঝড় আসে।

বেড়া-ভাঙার মাতন নামে উদ্দাম উল্লাসে॥

তোমার মোহন এল ভীষণ বেশে, আকাশ ঢাকা জটিল কেশে–

বুঝি এল তোমার সাধনধন চরম সর্বনাশে॥

বাতাসে তোর সুর ছিল না, ছিল তাপে ভরা।

পিপাসাতে বুক-ফাটা তোর শুষ্ক কঠিন ধরা।

এবার জাগ্রে হতাশ, আয় রে ছুটে অবসাদের বাঁধন টুটে–

বুঝি এল তোমার পথের সাথি বিপুল অট্টহাসে॥”

হয়তো এই গানেই পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাঞ্চলের (উত্তর বঙ্গ) মেচ সম্প্রদায়ের মানুষেরা তাদের আগমনী নৃত্য করতে ব্যাস্ত। একে স্থানীয় ভাষায় বলা হয় বৈশাগু নৃত্য। ১লা বৈশাখ থেকে তিন দিন ধরে মেচ যুবক-যুবতীরা এই নৃত্যোৎসব করে থাকে। এই উৎসবে তরুণীরা সানছালি রঙিন নকশি কাপড়ের ওড়না, গলাবন্ধনী পরিধান করে। এরা ঢোল, বাঁশি, করতাল নিয়ে ― নতুন নতুন গান এবং নাচের মধ্য দিয়ে এই উৎসব পালন করে। “বৈশাখ” শব্দটি এসেছে বিশাখা নামক নক্ষত্রের নাম থেকে। এই মাসে বিশাখা নক্ষত্রটিকে সূর্যের কাছে দেখা যায়। বাঙালী আর নববর্ষ নিয়ে নতুন করে কোনো কিছু বলার নেই। কারণ শুধু এটাই যে বাংলা নববর্ষ শুধু কোনো উৎসব নয়; এটা রোদে তপ্ত মাটিতে প্রথম বৃষ্টির জলে ভেজা মেটেল গন্ধের মতো। এর অনুভূতি যতবারই উপভোগ করুন না কেন, আপনার তৃষ্ণাতুর মন কখনই ক্ষান্ত হবেনা এই অনুভূতিকে পুনরায় উপভোগ করার জন্য।

Advertisements

এই বৈশাখে কিছু প্রসিদ্ধ বাঙ্গালীর জন্মদিন:-

১ বৈশাখ – রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়, ইতিহাসবিদ

২ বৈশাখ – উল্লাসকর দত্ত, স্বাধীনতা সংগ্রামী

৩ বৈশাখ – অমৃতলাল বসু, সাহিত্যিক ও সংগীতজ্ঞ

৮ বৈশাখ – নবকৃষ্ণ ভট্টাচার্য, কবি ও শিশুসাহিত্যিক

৯ বৈশাখ – ড. জ্ঞানেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়, বিজ্ঞানী

১৩ বৈশাখ – শরৎচন্দ্র পণ্ডিত (দাদাঠাকুর), রস-সাহিত্যিক ও সংগীতজ্ঞ

১৯ বৈশাখ – সত্যজিৎ রায়, চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিশুসাহিত্যিক

২১ বৈশাখ – প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার, স্বাধীনতা সংগ্রামী

২৫ বৈশাখ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কবি ও সাহিত্যিক

২৬ বৈশাখ – গুরুসদয় দত্ত, ব্রতচারী আন্দোলনের প্রবর্তক

২৬ বৈশাখ – অতুলচন্দ্র গুপ্ত, সাহিত্যিক

৩১ বৈশাখ – মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর, ব্রাহ্ম ধর্মনেতা

এই বৈশাখে কিছু প্রসিদ্ধ বাঙ্গালীর মৃত্যুদিন:-

২ বৈশাখ – অদ্বৈত মল্লবর্মণ, সাহিত্যিক

৩ বৈশাখ – প্রবোধকুমার সান্যাল, সাহিত্যিক

৪ বৈশাখ – বারীন্দ্রকুমার ঘোষ, স্বাধীনতা সংগ্রামী

৯ বৈশাখ – সত্যজিৎ রায়, চলচ্চিত্র পরিচালক ও শিশুসাহিত্যিক

১৩ বৈশাখ – রাজশেখর বসু (পরশুরাম), সাহিত্যিক

১৭ বৈশাখ – প্রফুল্ল চাকী, স্বাধীনতা সংগ্রামী

২৬ বৈশাখ – প্রমথনাথ বিশী, সাহিত্যিক

২৬ বৈশাখ – ড. জ্ঞানেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়, বিজ্ঞানী

২৯ বৈশাখ – সুকান্ত ভট্টাচার্য, কবি

৩১ বৈশাখ – অসিতকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়, গবেষক ও অধ্যাপক।

Advertisements

আমাদের “কলি কথা”র E-magazine এর 2nd issue তে যারা যারা যুক্ত হয়েছেন তারা হলেন-

  • সৌহিত দাস
  • ঋতপা ব্যানার্জী
  • সন্তু ব্যানার্জী
  • সৌরদীপা ঘোষ
  • তৃষিক বোস
  • তিলক মুখার্জি
  • অঙ্কন গুহ
  • রুমা চক্রবর্ত্তী
  • রাজু চক্রবর্তী
  • সুদীপ দাস

আপনারা পুনরায় এই অল্প সময়ের মধ্যেই, আমাদের অনেক লেখা,কবিতা ও আরও অনেক আপনাদের সৃষ্টি পাঠিয়েছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত; পর্যাপ্ত সময় না পেয়ে আমিও পুনরায় সে গুলিকে E-magazine এ যোগ করতে পারিনি। এই ত্রুটির জন্য আমি একান্ত দুঃখীত। তবে কথা দিলাম, আমাদের “কলি কথা”র তৃতীয় isaue তে আপনাদের সৃষ্টি গুলি যোগ করবোই। তাই সাহিত্যের এবং আমাদের প্রতি ভালোবাসা নিয়ে, আপনারা আমাদের পাশে থাকুন।

Click on the download button for downloading our 2nd E-magazine

সম্পূর্ণ সম্পাদনা,ওয়েবসাইট রক্ষণাবেক্ষণ এবং ডিজাইনিং,ই-ম্যাগাজিন তৈরি এবং ডিজাইনিং এবং পরিচালনায় আমি – সাহেব সরদার।
ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proof reading এ – দীপান্বিতা সানা।
Advertisements

One-Time
Monthly
Yearly

Make a one-time donation

Make a monthly donation

Make a yearly donation

Choose an amount

5 ₹
15 ₹
50 ₹
5 ₹
15 ₹
100 ₹
5 ₹
15 ₹
100 ₹

Or enter a custom amount


Support us if possible. Your contribution is appreciated.

Your contribution is appreciated.

Your contribution is appreciated.

DonateDonate monthlyDonate yearly
Advertisements
Advertisements

Digital-Magazine

1st issue

কলি কথা/KOLI KATHA E-MAGAZINE 1st ISSUE

It's not about us, it's about all of us

চৈত্র বা চৈৎ(সংস্কৃত: चैत्र) বাংলা সনের দ্বাদশ ও সমাপনী মাস এবং ভারতীয় রাষ্ট্রীয় শকাব্দের প্রথম মাস। আধুনিক বাংলা পঞ্জিকা অনুসারে এর দিন সংখ্যা ৩০। মূলত বসন্তের মূল আমেজ পাওয়া যায় ফাল্গুনের শেষার্ধ থেকে চৈত্রের প্রথমার্ধ পর্যন্ত। বসন্তের প্রধান পরিচয় এর লাল হলুদ ফুল। তাই কবি বলেন- ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক, আজ বসন্ত! সম্পূর্ণ বাংলায় বসন্তের ফুল বললেই শিমুল আর পলাশ ফুলের কথা সবার আগে মনে পড়ে! উভয় ফুলের রঙই লাল।আর এই রূপ ও তেজে মুগ্ধ হয়ে তাই তো কবিগুরু বলেছেন-

‘প্রহরশেষের আলোয় রাঙা সেদিন চৈত্রমাস–

তোমার চোখে দেখেছিলাম আমার সর্বনাশ।।

এ সংসারের নিত্যখেলায়

প্রতিদিনের প্রাণের মেলায় বাটে ঘাটে

হাজার লোকের

হাস্য-পরিহাস–

মাঝখানে তার

তোমার চোখে আমার সর্বনাশ।।

আমের বনে দোলা লাগে,

মুকুল প’ড়ে ঝ’রে–

চিরকালের চেনা গন্ধ

হাওয়ায় ওঠে ভ’রে।

মঞ্জরিত শাখায় শাখায়, মৌমাছিদের পাখায় পাখায়,

ক্ষণে ক্ষণে বসন্তদিন

ফেলেছে নিশ্বাস–

মাঝখানে তার

তোমার চোখে আমার সর্বনাশ।’

“প্রহরশেষের আলোয় রাঙা সেদিন চৈত্র মাস”——রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

Advertisements

ভাবছেন এতো বকে যাচ্ছি কেন ? কারণটা আর কিছুই নয়, শুধু এই বাংলা বছর শেষের মাসে আপনাদের সাথে একটু আড্ডা দিতে আসা মাত্র। আর সব আড্ডাতেই যেমন অসংখ্য মিশ্র অনুভূতি, অভিজ্ঞ্যতা, বিষয় থাকে। তেমনই বিষয়, আমাদের ও আপনাদের আড্ডাতেও আছে! কি জানতে চান? তাহলে তো মশাই আপনাদেরকে একবার আমাদের E-magazine টা পড়তে হয়! হ্যাঁ আমাদের E-magazine ! নাম তার “কলি কথা”! – ‘এই কলির বুকে আমার, আপনার, আমাদের কিছু কথা’।এই বছর শেষের চৈত্রের শেষ দিন গুলিকে স্মরণীয় করতে আর আপনাদের সাথে আড্ডা দেওয়ার আর কোনো উত্তম মাধ্যম খুঁজে পাইনি। তাইতো চলে এলাম আপনাদের কাছে আপনাদেরই সৃষ্টি লেখা, ছবি, কবিতা, প্রবন্ধ আরও কত কি নিয়ে! আর এটা শুধু এই মাসেই নয়, প্রতি মাসেই আমরা এই ভাবেই আপনাদের সাথে আড্ডা দিতে চলে আসবো, আপনাদেরই পাঠানো সৃষ্টি নিয়ে। তাই বন্ধুরা সাথে থাকুন।

Advertisements

আমাদের “কলি কথা”র E-magazine এর ১st ইস্যুতে এ যারা যারা যুক্ত হয়েছেন তারা হলেন-

আপনারা এই অল্প সময়ের মধ্যেই, আমাদের অনেক লেখা, কবিতা ও আরও অনেক আপনাদের সৃষ্টি পাঠিয়েছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত পর্যাপ্ত সময় না পেয়ে আমি সে গুলিকে E-magazine যোগ করতে পারিনি। এই ত্রুটির জন্য আমি একান্ত দুঃখীত। তবে কথা দিলাম , আমাদের “কলি কথা”র দ্বিতীয় isaue তে আপনাদের সৃষ্টি গুলি যোগ করবোই।

Click on the download button for downloading our 1st E-magazine

  • সম্পূর্ণ সম্পাদনা, ওয়েবসাইট রক্ষণাবেক্ষণ এবং ডিজাইনিং, ই-ম্যাগাজিন তৈরি এবং ডিজাইনিং এবং পরিচালনায় আমি – সাহেব সরদার।
  • ব্লগ পোস্ট এবং অন্যান্য সকল Proof reading এ – দীপান্বিতা সানা।

Advertisements
Advertisements